রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং
প্রধান সংবাদ, প্রবাস সংবাদ লেবাননে‌ সরকার বিরোধী আন্দোলনে বাংলাদেশী , উদ্বিগ্ন দূতাবাসে ।

লেবাননে‌ সরকার বিরোধী আন্দোলনে বাংলাদেশী , উদ্বিগ্ন দূতাবাসে ।


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১০/২৩/২০১৯ , ৭:৪১ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: প্রধান সংবাদ,প্রবাস সংবাদ


লেবাননে‌ সরকার বিরোধী আন্দোলনে বাংলাদেশী , উদ্বিগ্ন দূতাবাসে ।

লেবাননে সরকারবিরোধী চলমান‌ আন্দোলন কর্মসূচিতে কিছু সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশির অংশ গ্রহণে খবর পাওয়া যাচ্ছে । কেবল অংশ গ্রহণই মধ্যে সিমা বধ্যো ছিলনা , বিভিন্ন মিডিয়াতে সরকার বিরোধী আন্দোলনে বিষয়ে বক্তব্য রাখেতে দেখ গেছে ।

লেবাননের বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশীরা এই দৃশ্য দেখে উদ্বিগ্ন ও শংকিত হয়ে পরেন ।
নাগরিকদের চলমান আন্দোলন লেবাননের সরকার ও জনগণের অভ্যান্তরিণ বিষয় । প্রবাসী বা বিদেশীদের অধিকার নেই কখন কোন দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে ও রাজনৈতিক কোন কর্মসূচীতে সম্পৃক্ত হওয়া কিংবা মতামত প্রকাশ করা । লেবাননে প্রবাসী বাংলাদেশীদের উপর এই কর্মকান্ডের জন্য বিরূপ প্রভাব পরতে পারে ।

লেবাননে অবস্থিত্ব বাংলাদেশ দূতাবাস
এই ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত কর্মকান্ড থেকে বিরত থাকার জন্য সকল প্রবাসী বাংলাদেশীদের অনুরোধ জানিয়েছে ,এ সংক্রান্ত দূতাবাসের থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়, অতি উৎসাহী কিছুসংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি লেবাননের চলমান সরকার বিরোধী আন্দোলনে অংশ নিয়েছেন এবং মিডিয়াতে বক্তব্য রেখেছেন। বাংলাদেশি কর্মীদের এহেন কর্মকাণ্ড গ্রহণযোগ্য নয়। এর ফলে লেবাননে কর্মরত বাংলাদেশি কর্মীদের উপর বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে। একটি প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে , তাছাড়াও অবৈধ বাংলাদেশীদের বৈধকরণ যে প্রক্রিয়া শুরুর পথে তাও বিঘ্নিত হওয়ার আশংকা করছে বাংলাদেশ দূতাবাস।

লেবাননে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকার , সাংবাদিকদেরকে বলেন এই ধরণের অনাকাঙ্ক্ষিত কাজে যুক্ত প্রবাসী বাংলাদেশিদের সংখ্যা হাতে গোনা। কেউ কেউ না বুঝে বা তাদের লেবানিজ সহকর্মীদের খপ্পরে পরে বিক্ষোভ আন্দোলনে অংশ নিয়েছেন। তবু এটা আমাদের জন্য বিব্রতকর এবং দেশ ও প্রবাসীদের স্বার্থে শংকার কারণ।

তিনি বলেন, এ দেশের সরকার ও জনগণের সাথে আমাদের একটা চমৎকার বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। আমরা সেই সম্পর্ককে আরো দৃঢ় করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি। তাই আমরা দূতাবাসের পক্ষ থেকে চলমান বিক্ষোভে কোন প্রকার সম্পৃক্ত না হওয়ার জন্য প্রবাসীদেরকে অনুরোধ জানাচ্ছি।’

একই সাথে তিনি বাংলাদেশ কমিউনিটির বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ সকল সচেতন বাংলাদেশীকে এ বিষয়ে প্রবাসীদের সচেতন করার জন্য এগিয়ে আসার অনুরোধ জানাচ্ছি।
 
তিনি আরও জানান, লেবাননে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিরা নিরাপদে আছে। তবে তাঁদেরকে সতর্কতার সাথে চলাফেরার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। পরিস্থিতির দিকে কড়া নজর রাখছে বাংলাদেশ দূতাবাস। সার্বক্ষনিক খোঁজ খবর রাখা হচ্ছে প্রবাসী বাংলাদেশিদের। তিনি তাদেরকে বিক্ষোভ সমাবেশ এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেন।

জানা যায়, চরম উত্তেজনা -উৎকন্ঠা-প্রতিবাদী পরিবেশ থাকলেও গত ৬ দিন ধরে চলা বিক্ষােভ কর্মসূচিতে বড় ধরনের কোন অঘটন হয়নি। সরকারও এখন পর্যন্ত কঠোর কোন পদক্ষেপ নেয়নি। ফলে শান্তিপূর্ণভাবেই চলছে কর্মসূচি। বিক্ষোভকারীরা অনেকটা উৎসব আমেজেই আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। লাল-সাদা রঙের জাতীয় পতাকার আর প্রতিবাদী ব্যানার-ফেস্টুনের সাথে নানা ধরনের সাজসজ্জা, ঢোলবাদ্য নিয়ে অনেক লেবানিজ বিশেষ করে তরুণ-তরুণীদের সমাবেশে উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। ফলে অনেকটা রঙিন হয়ে উঠেছে সরকার বিরোধী এই বিক্ষোভ।

উৎসব আমেজেই কিছুসংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশিকে বিক্ষোভে টেনেছে বলে আমাদের বিশ্বাস। স্রেফ কৌতুহল কিংবা লেবানিজ বন্ধুকে সঙ্গ দিতেই গিয়ে তারা এই অধিকারহীন কাজে জড়িয়ে গেছেন। লেবাননের জাতীয় দিবস, জাতীয় উৎসবগুলোতে সবদেশের প্রবাসীরা স্বস্তফূর্ত অংশগ্রহণ করে থাকেন। উৎসব আমেজে বলে এটাকেও হয়তবা তেমনটি মনে করছেন অতি উৎসাহীরা। তবে এ সংখ্যা খুবই কম ।

কমিউনিটি নেতারাও মনে করছেন, কতিপয় প্রবাসী বাংলাদেশীরা না বুঝে না জেনে সরকার বিরোধী বিক্ষোভে উপস্থিত হচ্ছেন স্রেফ উৎসাহ ও আগ্রহের বশে। অনেকে লেবানিজ মালিক-বন্ধু বান্ধবদের সঙ্গী হয়েও জড়িয়ে পড়ছেন বিক্ষোভে। এ বিষয়ে সর্তক ও সচেতন থাকার সাথে মালিক-বন্ধু বান্ধবদের আবদার-অনুরোধ উপেক্ষা করার পরামর্শ রাখেন কমিউনিটি নেতারা।

নেতারা জানান, সামাজিক সাংগঠন ও সামাজিক যোগােযাগ মাধ্যমে এ ব্যাপারে প্রবাসীদের সর্তক করা হচ্ছে। এর পাশাপাশি যারা এমন কর্মকাণ্ডে জড়াচ্ছেন তাদের বিস্তারিত তথ্য দিয়ে দূতাবাসকে জানানোর জন্যও অনুরোধ করা হচ্ছে।

চলমান পরিস্থিতে নিজেদের নিরাপত্তার ব্যাপারে সর্তক থাকার জন্য বাংলাদেশি কমিউনিটির প্রতি আহবান জানান নেতারা। খুব জরুরী প্রয়োজন ছাড়া রাস্তা-ঘাটে অযথা ঘোরাফেরা না করার পরামর্শ দেন তারা।

156 total views, 1 views today

Comments

comments

Close