রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং
প্রধান সংবাদ, রাজশাহী বিভাগ রাজশাহী অঞ্চলে আগ্নেয়াস্ত্র ও মাদকের ছড়াছড়ি।

রাজশাহী অঞ্চলে আগ্নেয়াস্ত্র ও মাদকের ছড়াছড়ি।


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: ১১/২১/২০১৯ , ৮:৩৩ অপরাহ্ণ | বিভাগ: প্রধান সংবাদ,রাজশাহী বিভাগ


রাজশাহী অঞ্চলে আগ্নেয়াস্ত্র ও মাদকের ছড়াছড়ি
রাজশাহী ১৯:৫৮, ২১ নভেম্বর, ২০১৯

রাজশাহী অঞ্চলে সীমান্ত পথে ভারত থেকে দেশে বিপুল ছোট আগ্নেয়াস্ত্র ও মাদক প্রবেশ করছে। এসব অস্ত্র বিভিন্ন রুট দিয়ে চলে যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন স্থানে। নাশকতার কাজে ব্যবহারের অসৎ উদ্দেশ্যেই আগ্নেয়াস্ত্র সীমান্ত পথে দেশে প্রবেশ করছে বলে মনে করছেন আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

জানা গেছে, গত ৬ মাসে এ অঞ্চলের রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নওগাঁ, নাটোর ও জয়পুরহাট জেলায় পৃথক অভিযানে মোট ৫৪টি অস্ত্র, প্রায় ১৯ কেজি হেরোইন ও অন্য বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্যসহ ৭৮৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-৫ এর সদস্যরা। এদের মধ্যে জেএমবির সক্রিয় সদস্যসহ অস্ত্র ব্যবসায়ীরাও রয়েছেন।

ওয়াকিবহাল সূত্র জানায়, ধরা পড়া অস্ত্রের আধিক্য উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার সৃষ্টি করেছে। এর বাইরে কী পরিমাণ অস্ত্র বাংলাদেশে ঢুকে দেশের বিভিন্ন এলাকার অপরাধীদের হাতে পৌঁছেছে তার সঠিক পরিসংখ্যান নেই। আশঙ্কা করা হচ্ছে, ধরা পড়ছে যা তার চেয়ে অনেক বেশি অস্ত্র সন্ত্রাসী বা জঙ্গিদের হাতে পৌঁছে যেতে পারে।

র‌্যাব সূত্রে জানা যায়, রাজশাহী অঞ্চলের বিভিন্ন এলাকায় প্রায়ই একাধিক আগ্নেয়াস্ত্র ও মাদকের চালান ধরা পড়ছে। কয়েক মাসে অস্ত্রের তুলনামূলক বড় চালান ধরা পড়েছে। বড় চালানগুলোর বেশিরভাগই এসেছে শিবগঞ্জ সীমান্ত দিয়ে। এর মধ্যে গত ৬ মাসে রাজশাহী মহানগরী থেকেই নয়টি অস্ত্র এবং প্রায় ছয় কেজি হেরোইন ও বিভিন্ন পদের মাদকসহ ২০৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গত বুধবার (২০ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১১টার পর পুঠিয়ার নামাজগ্রাম এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ওয়ান শুটার গান, দুইটি ম্যাগাজিন, ৫টি গুলি এবং ২ হাজার ৬৩০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ বানেশ্বরে শীর্ষ অস্ত্র ও মাদক ব্যবসায়ী সুজন আলী ওরফে বাবুকে (৩০) আটক করে ব্যাব-৫।

বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব ডিজি মাফজুজুর রহমান জানান, রাজশাহী মহানগরী থেকে এ বছরের জুন থেকে নভেম্বর পর্যন্ত মোট ৯টি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে, বিদেশি পিস্তল ৮টি, ওয়ান শুটারগান ১টি, ম্যাগাজিন ১৫টি, গুলি ৩১ রাউন্ড, হেরোইন ৫ কেজি ৯৪৬ গ্রাম, ফেনসিডিল ৪ হাজার ৪৩৫ বোতল, ইয়াবা ট্যাবলেট ৫৬ হাজার ৫৭৯ পিচ, গাঁজা ১৮১ কেজি ৮৭ গ্রাম, চোলাই মদ ২৯৪০ লিটার, বিদেশি মদ ২০৩ বোতল, বিয়ার ২০ ক্যান। উক্ত ৬ মাসে মহানগরী থেকে ২০৭ জনকে বিভিন্ন অপরাধে আটক করা হয়েছে। এর মধ্যে জঙ্গি ৮ জন, অস্ত্র ব্যবসায়ী ৫ জন, মাদক ব্যবসায়ী ১৮২ জন, সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ৩ জন, জালনোট ব্যবসায়ী ৩ জন, অপহরণকারী একজন, চোরাকারবারী ৪ জন, সাইবার ক্রাইম সংক্রান্ত অপরাধী একজন এবং অন্য অপরাধে ৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আরও পড়ুন: কানাডায় ট্রুডোর নতুন মন্ত্রিপরিষদ গঠন

তিনি আরও বলেন, রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নওগাঁ, নাটোর ও জয়পুরহাট এ ৫ জেলায় অপরাধ নিয়ন্ত্রণ ও অপরাধীদের ধরতে কাজ করছে র‌্যাব-৫ একাধিক টিম। জুন থেকে নভেম্বর পর্যন্ত এসব জেলা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ৫৪টি অস্ত্রের মধ্যে বিদেশি পিস্তল ৩৩টি, রিভালবার ৪টি, ওয়ান শুটারগান ১৬টি, পাইপগান একটি এবং ম্যাগাজিন ৫০টি ও গুলি ১৬৬ রাউন্ড। এছাড়া হেরোইন উদ্ধার করা হয়েছে ১৮ কেজি ৭৭৬ গ্রাম, যার বাজার মূল্য প্রায় ২০ কোটি টাকা। এদিকে ফেনসিডিল উদ্ধার হয়েছে ১৩ হাজার ২১৬ বোতল, ইয়াবা টেবলেট এক লাখ ৪৩ হাজার ৮৫৩ পিচ, গাঁজা ২৪৪ কেজি ৯৭২ গ্রাম, দেশে তৈরি চোলাই মদ ৪ হাজার ৪০২ লিটার, বিদেশি মদ ২৯৩ বোতল ও বিয়ার ৩০ ক্যান।

এদিকে ৫টি জেলা থেকে এই ছয়মাসে বিভিন্ন অপরাধে মোট ৭৮২জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এদের মধ্যে জঙ্গি গ্রেপ্তার করা হয়েছে ১০জন, অস্ত্র ব্যবসায়ী ২৬ জন, মাদক ব্যবসায়ী ৬৭৩ জন, সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ২৩ জন, জাল নোট চক্রের সদস্য ৩ জন, অপহরণকারী ৪ জন, চোরাকারবারী ৪ জন, সাইবার ক্রাইম সংক্রান্ত অপরাধী ২জন ও অন্য অপরাধী ৪৮জন।

69 total views, 1 views today

Comments

comments

Close