করোনা মহামারির কারণে নিয়মিত টিকাদান কর্মসূচি ব্যাহত হওয়ায় বিশ্বে বিপুল সংখ্যক শিশুর জীবন ঝুঁকির মধ্যে- জাতিসংঘ

টিকাদান ব্যাহত হওয়ায় ঝুঁকিতে ৮ কোটি শিশু : জাতিসংঘ
অনলাইন ডেস্ক ১৭:২৩, ২৩ মে, ২০২০

করোনা মহামারির কারণে নিয়মিত টিকাদান কর্মসূচি ব্যাহত হওয়ায় বিশ্বে বিপুল সংখ্যক শিশুর জীবন ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে। বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা ও ইউনিসেফ শুক্রবার এ কথা জানায়। খবর এএফপির।

যৌথভাবে টিকাদান কার্যক্রম পরিচালনাকারী দুটি জাতিসংঘ সংস্থা সতর্ক করে বলেছে, করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে ইতোমধ্যে কয়েক ডজন দেশে টিক কার্যক্রম মারাত্মক ব্যহত হওয়ায় প্রতিরোধযোগ্য অনেকগুলো রোগের পুনরুত্থানের পথ প্রশস্ত হয়েছে।

বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউ এইচও)-এর মহাসচিব টেড্রস অ্যাডহ্যানম গেব্রেইয়েসাস এক যৌথ ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে বলেন ‘কোভিড-১৯ বিশ্বব্যাপী জীবন রক্ষাকারী টিকাদান কার্যক্রম হুমকির মধ্যে ফেলে দিয়েছে।

আরো পড়ুন : জীবন বাঁচাতে জীবিকাও সচল রাখতে হবে : ওবায়দুল কাদের

‘বিভিন্ন ধনী ও গরিব দেশের লাখ লাখ শিশুর জীবন প্রাণঘাতী ডিপথেরিয়া, হাম ও নিউমোনিয়ার মতো রোগের ঝুঁকিতে ফেলে দিয়েছে’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিশ্বে এখন নতুন করোনা ভাইরাসের নিরাপদ ও কার্যকরী ভ্যাকসিন খুঁজে বেড়াচ্ছে, কিন্তু অন্যান্য রোগ প্রতিরোধের টিকা- যেগুলো হাতের কাছেই রয়েছে সেগুলো এখনো সরবরাহ করা দরকার।

ট্রেডর্স বলেন, বিশ্লেষকদের মতে অন্তত ৬৮টি দেশে নিয়মিত টিকাদান কার্যক্রম ব্যহত হচ্ছে এবং এসব দেশে থাকা এক বছরের কম বয়সী প্রায় ৮ কোটি শিশুর জীবন ঝুঁকিতে রয়েছে।

তিনি বলেন, রাষ্ট্রসমূহকে টিকাবহির্ভূত শিশুদের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। তিনি লাওসের সুপারমার্কেটে আসা শিশুদের টিকাদানের ঘটনার উল্লেখ করে বলেন, এ ধরনের উদ্ভাবনমূলক সমাধানও খুঁজে বের করতে হবে।

     More News Of This Category

Our Like Page