Logo
আজঃ Sunday ২৬ June ২০২২
শিরোনাম
পবিপ্রবিতে বিশ্ব সমুদ্র দিবস পালিত অপহরণের ৩ মাস ২০ দিন পর মরদেহ উদ্ধার, মেম্বারসহ গ্রেফতার ৩ চির যৌবনপ্রাপ্ত হওয়ার নেশায় বৃদ্ধাকে হত্যা করে পুরুষাঙ্গ, অন্ডকোষ, চোখ তুলে নেওয়া খুনি ও হুকুমদাতা গ্রেফতার পবিপ্রবিতে বরিশাল বিভাগীয় রোভার মেট ওয়ার্কশপে’র উদ্বোধন ঝিনাইদহে মিছিলে গুলি ও সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে আ’লীগের বিরাট প্রতিবাদ সমাবেশ কেশবপুরে ধুমপান ও তামাকজাত দ্রব্য নিয়ত্রণ বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত চৌগাছায় পুলিশের হাতে ২'শত ফেনসিডিলসহ ২ জন গ্রেফতার দলের সিদ্ধান্ত অমান্য পদ পদবি গোপন করে পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি নেতারা ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক নওগাঁয় চাঁদার টাকা না পেয়ে চুরি আঘাত করে হত্যা চেষ্টা বাবা-ছেলেকে, পলাতক আসামী!

স্থান নির্বাচন সঙ্কটে প্রস্তাবিত কুড়িগ্রাম কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়

প্রকাশিত:Saturday ০৭ May ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ১৯৭জন দেখেছেন
মোঃ হামিদুল ইসলাম কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধি

Image



    মোঃ হামিদুল  ইসলাম 

কুড়িগ্রাম জেলা  প্রতিনিধি 


প্রস্তাবিত কুড়িগ্রাম কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় বিল জাতীয় অর্থনৈতিক নির্বাহী সভা একনেকে পাশ করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কুড়িগ্রাম জেলাবাসী চির কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছে ।


যিনি কুড়িগ্রামকে ও কুড়িগ্রাম জেলার মানুষকে নিজের আপনজন মনে করে নিজ উদ্যোগে নিয়েছেন নানামুখী উন্নয়ন কর্মসূচী। অন্যান্য উন্নয়ন মুলক কর্মসূচীর মধ্যে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় অন্যতম। কুড়িগ্রাম জেলার মানুষের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও আর্থ সামাজিক উন্নতির লক্ষ্যে কুড়িগ্রাম জেলায় একটি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের ঘোষণা দেন মানবতার অগ্রদূত মমতাময়ী নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এরই ফলশ্রুতিতে বাস্তবায়ন হতে যাচ্ছে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসিক ভবন,একাডেমিক ভবন ও আবাসন ভবনের নির্মাণ কাজ।


কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় প্রাপ্তি কুড়িগ্রাম জেলাবাসীর জন্য এক অন্যন্য মাইলফলক।


এই বিশ্ববিদ্যালয় কুড়িগ্রাম জেলার আর্থসামাজিক অবস্থার উন্নতির পাশাপাশি আত্মমর্যাদা বৃদ্ধিতে বিশেষ মানদন্ড হিসেবে কাজ করবে।



কিন্তু কোথায় হবে এ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, কোথায় অবকাঠামোগুলো নির্মাণ হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা পাবে পর্যাপ্ত কৃষি গবেষণার সুযোগ সুবিধা, এই সংশ্লিষ্ট নানান দিক বিবেচনা করে চলছে স্থান নির্বাচনের জল্পনা কল্পনা।



প্রশাসনিক ও একাডেমিক ভবন নির্মাণে উপযুক্ত জায়গা নির্বাচনের জন্য ইতিমধ্যে কুড়িগ্রামের জেলার বেশ কয়েকটি জায়গা পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হচ্ছে।


নতুন করে আরও একটি জায়গা অন্তর্ভুক্ত করে সেই জায়গাটি পরীক্ষা নিরীক্ষা করে অন্যান্য জায়গার চেয়ে অধিক গুরুত্বপূর্ণ হয় কিনা সেই বিষয় টি আমলে নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের শুভ দৃষ্টি কামনা করছে এলাকার বিশিষ্ট জনেরা।


ভৌগোলিক অবস্থানের দিক দিয়ে রংপুর বিভাগ এবং দুই জেলা লালমনির হাট ও কুড়িগ্রাম জেলার একদম কেন্দ্রবিন্দু রাজারহাট-তিস্তা হাইওয়ের মধ্যবর্তী ইটাকুড়ির দোলা। যেখানে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের জন্য পর্যাপ্ত সরকারী জায়গা রয়েছে।


ইটাকুড়ির দোলা কেন অন্যান্য জায়গার থেকে অধিক উপযুক্ত জায়গা হিসেবে বিবেচিত হবে তা নিম্নে আলোকপাত করা হলো।


ইটাকুড়ির দোলা তিস্তা নদীর অববাহিকা থেকে প্রায় ১২-১৫ কিঃমি দূরে অবস্থিত। তিস্তা সংযোগ সেতু পার হয়ে রংপুর বিভাগ ৪০কিঃমি দূরে অবস্থিত। ৪০কিঃমিঃ দুরত্বের যোগাযোগ ১ঘন্টায় করা সম্ভব অর্থাৎ ইটাকুড়ির দোলা হতে বিভাগের দুরত্ব প্রায় ১ঘন্টার পথ।


 পাশের জেলা লালমনিরহাট ইটাকুড়ির দোলা থেকে ২০-২৫ কিঃমি দূরে যাতায়াতের জন্য ৪০মিনিটের পথ।


নিজ জেলা কুড়িগ্রামের রৌমারী রাজিবপুর ছাড়া বাকি ৬ উপজেলার প্রবেশদ্বার রাজারহাট উপজেলা।

রাজারহাট উপজেলার ছিনাই ইউনিয়নের উপর দিয়ে অন্যান্য উপজেলার যানবাহন যাতায়াত করে। এর বিকল্প অন্য কোন রাস্তা বা রোড নেই। সেদিক থেকে ইটাকুড়ির দোলা যাতায়াতের জন্য একদম সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে।


রাজারহাট উপজেলা অন্যান্য উপজেলা থেকে কৃষি গবেষণার জন্য উপযুক্ত অঞ্চল হিসেবে বিবেচিত হবে এতে কোন সন্দেহ নেই।


এই উপজেলায় যেমন কিছু উঁচু জায়গা রয়েছে,যেগুলোতে বিভিন্ন প্রজাতির শাক-সবজি চাষাবাদ হয়ে থাকে। যা এই অঞ্চলের মানুষের চাহিদা মিটিয়ে রাজধানী ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন শহরে সরবরাহ করা হয়ে থাকে।


এই অঞ্চলে আবার সমতল জমিও আছে যেগুলোতে প্রচুর পরিমাণে ধান,পাট,গম ইত্যাদি চাষাবাদ করা হয়।


রাজারহাট উপজেলা অন্যান্য উপজেলার চেয়ে কৃষির জন্য এক সুবিশাল সম্ভবনার নাম।


রাজারহাট উপজেলায় তিস্তার বিস্তৃণ চর রয়েছে,এই চরাঞ্চলে মৌসুমী শস্য যেমন আলু, বাদাম, পিয়াজ, মরিচ, ডাল, ভূট্টা, পাট, রসুন সহ বিভিন্ন প্রজাতির শাক সবজি প্রতি বছর বাম্পার ফলন হয়।

কৃষির গবেষণার জন্য এর থেকে ভালো জায়গা অন্য কোথাও পাওয়া যাবে না।

বিশেষ করে পেঁয়াজ আমাদের দেশে জাতীয় একটি সমস্যা এই অঞ্চলে পেঁয়াজের উপর গবেষণা করে,পেঁয়াজ চাষাবাদ করলে বর্তমানের উৎপাদন থেকে ৩/৪গুন বেশী পেঁয়াজ উৎপাদন করা সম্ভব। তখন পেঁয়াজের জন্য অন্য রাষ্ট্রের মুখাপেক্ষী হয়ে থাকতে হবেনা।


ইটাকুড়ির দোলা থেকে ৩-৪ কিঃমি দূরে হরিশ্বর তালুক নামে একটি জায়গা রয়েছে এই অঞ্চলে অসংখ্য ছোট বড় বিল রয়েছে যেখানে শত শত মানুষের একমাত্র উপার্জনের মাধ্যম হচ্ছে মাছ চাষ। মাছ চাষের উপর কৃষি গবেষণার জন্য অসাধারণ একটি জায়গা,যা অন্যান্য উপজেলায় এধরণের সুযোগ কম আছে।


সবচেয়ে বড় খুশির বিষয় হচ্ছে তিস্তা নিয়ে শেখ হাসিনার সরকার মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন। এই মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হলে নদীর দুই তীরে অসংখ্য ছোট ছোট অর্থনৈতিক জোন তৈরি করা হবে যা কৃষি গবেষণায় ব্যাপক ভূমিকা রাখতে পারবে। যা কুড়িগ্রাম জেলার কৃষি বিপ্লব ঘটবে এতে কুড়িগ্রামের অর্থনৈতিক অবস্থা চাঙ্গা হবে। দারিদ্র্য কে বিদায় জানানোও সম্ভব হবে।


এছাড়াও ইটাকুড়ির দোলা থেকে লালমনির হাট এয়ারপোর্ট  ২০-২৫ কিঃমি দুরে অবস্থিত। এখানে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করা হলে এয়ারপোর্ট টি চালু হবে।পাশাপাশি এয়ারপোর্টটি চালু হলে রংপুর বিভাগের বাইরের স্টুডেন্ট ও শিক্ষকরা নিমেশেই যাতায়াত করতে পারবে।


ইটাকুড়ির দোলার পাশ্ববর্তী সিংগাড় ডাবড়ী হাট রেল স্টেশন ও রাজারহাট রেলস্টেশন এই জায়গায় কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করা হলে চিলমারী উলিপুর ও কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার শিক্ষার্থীরা ৩০মিনিট থেকে ১ঘন্টার মধ্যে ক্যাম্পাসে আসতে পারবেন।


উপরোক্ত বিষয় গুলো পর্যালোচনা করলেই নিঃসন্দেহে রাজারহাট উপজেলার ইটাকুড়ির দোলায় হবে সর্বাধিক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের উপযুক্ত স্থান।


রাজারহাট উপজেলা বাসীর পক্ষ থেকেও কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় এর স্থান নির্ধারণ কমিটির প্রতি জোর আহবান করেছে,

উল্লেখিত ইটাকুড়ির দোলায় কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনে অধিক উপযুক্ত স্থান হিসেবে নির্বাচন করা যায় কিনা, সেবিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের শুভ দৃষ্টি কামনা করেছে।


আরও খবর



নিয়ামতপুরে আনোয়ারা পোল্ট্রি ফার্মের গরম বাতাসে ধান চিটা হওয়ার অভিযোগ

প্রকাশিত:Sunday ২৯ May ২০২২ | হালনাগাদ:Thursday ২৩ June ২০২২ | ৭৮জন দেখেছেন
মোঃ সিরাজুল ইসলাম নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি -১

Image



  নিয়ামতপুর(নওগাঁ)প্রতিনিধিঃ নওগাঁর নিয়ামতপুরে আনোয়ারা পোল্ট্রি ফার্মের গরম বাতাসের কারণে বোরো ধান চিটা হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শাহিন আলম ও আলাউদ্দিন নয়, নিয়ামতপুর উপজেলার হাজিনগর ইউনিয়নের উপরকুড়া শালবাড়ী গ্রামের অনেক কৃষকের স্বপ্নই নষ্ট হলো গরম বাতাসের কারণে। প্রায় ১৪ বিঘা জমিতে ওই গরম বাতাসের বোরো ধান চিটা হয়েছে। উপজেলার হাজিননগর ইউনিয়নের উপরকুড়া শালবাড়ী এলাকায় অবস্থিত আনোয়ারা পোল্ট্রি ফার্মের গরম বাতাসের কারণে এ ঘটনাটি ঘটেছে বলে দাবী কৃষকদের।


সরেজমিনে দেখা যায়, আনোয়ারা পোল্ট্রি ফার্মের আশেপাশের, অনেক জমির ধান অনেকটা সাদা রং ধারণ করেছে৷ হঠাৎ উঠতি ফসলের এ অবস্থায় কৃষকেরা দিশেহারা হয়ে পড়েছেন৷ আনোয়ারা পোল্ট্রি ফার্মের কারণে ক্ষতি হয়েছে কিনা জানতে চাইলে আমান গ্রুপের সহযোগী প্রতিষ্ঠান আনোয়ারা পোল্ট্রি এন্ড হ্যাচারীর সহকারী ম্যানেজার মতিউল হাসান বলেন, যে কৃষক অভিযোগ করেছে, এটা উদ্দেশ্যপ্রণীত বা ভিত্তিহীন। এটা প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে ক্ষতি হয়েছে বা গরম বাতাসের কারণে হয়ে থাকতে পারে। তবে আমার মনে হয় তাদের অভিযোগটি উদ্দেশ্যপ্রণীত বা ভিন্নহীন।



ভুক্তভোগী কৃষক শাহিন আলম ও আলাউদ্দিন  জানান,ধার দেনা করে জমিতে ধান চাষ করেছি। আশা ছিল, এই ফসল থেকেই কেটে যাবে সারা বছর। কিন্তু আনোয়ারা পোল্ট্রি ফার্মের গরম বাতাসে সেই ধান চিটা হয়ে গিয়েছে। আমাদের ১৪ বিঘা আবাদ গরম বাতাসের কারণে ধান চিটা হয়েছে। এছাড়া সহ প্রায় কয়েক জন কৃষক এই ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন। তারা আরোও জানান, শেষ সম্বলটুকু দিয়ে আবাদ করে এভাবে তীরে এসে তরি ডোবায় দিশেহারা হয়ে পড়েছি৷ আবার বাতাসের কারণে আশেপাশে পরিবেশে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ তৈরি হচ্ছে।


উপজেলা কৃষি অফিসার আমীর আব্দুল্লাহ ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, বিষয়টি আমার দৃষ্টি গোচরে আসে নাই। মাঠে ধান থাকা অবস্থায় অভিযোগ পেলে বিষয়টি নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা করে কি কারণে ক্ষতি হয়েছে তা জানা যেত। যতি ধান ক্ষেতে গরম বাতাসে নিয়মিত প্রবাহিত হয়ে থাকে, তাহলে ক্ষেতে ধান ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।


এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। অত্র এলাকার হাজিনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।


আরও খবর



ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক

প্রকাশিত:Tuesday ৩১ May ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৮৪জন দেখেছেন
মোঃ হামিদুল ইসলাম কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধি

Image



মোঃ হামিদুল  ইসলাম 

কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ


কুড়িগ্রামের উলিপুরে ১০০পিস ইয়াবাসহ নয়ন মিয়া(৩৫) ও আব্দুল মালেক(৩০) নামের দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। আটক নয়ন তবকপুর ইউনিয়নের দক্ষিন উমানন্দ এলাকার নজরুল ইসলামের পুত্র। এবং আব্দুল মালেক চিলমারী উপজেলার থানাহাট বাজার(ছমচপাড়া) এলাকার মোতালেব মিয়ার পুত্র।


পুলিশ সুত্রে জানাযায়, সোমবার সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উলিপুর থানার এসআই হারিছুর রহমান, মশিউর রহমান, এএসআই সোহাগ পারভেজ,এএসআই আবুল হাসেম সহ সংগীয় ফোর্স অভিযান চালিয়ে তবকপুর ইউনিয়নের দক্ষিন উমানন্দ কুঠিপাড়া গ্রামস্থ জনৈক ব্যক্তির পরিত্যক্ত বাড়ী থেকে ১০০পিস ইয়াবা ও ইয়াবা পরিবহনে ব্যবহৃত লাল-কালো রংয়ের হিরো ইগনিটোর ১২৫সিসি রেজিঃ বিহীন মোটরসাইকেলসহ নয়ন মিয়া ও আব্দুল মালেক কে আটক করা হয়। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অপর মাদক ব্যবসায়ী পালিয়ে যায়। আটক নয়ন মাদক পাচার করতে গিয়ে দীর্ঘদিন পূর্বে সড়ক দূর্ঘটনায় তার একটি পা হারায়। পরবর্তী সময়ে সুস্থ্য হয়ে সে মাদক ব্যবসা পুনঃরায় চালু করে এবং বিভিন্ন স্থান হইতে ইয়াবা ট্যাবলেট কমদামে ক্রয় করিয়া তার ব্যবহৃত লাল-কালো রংয়ের হিরো ইগনিটোর ১২৫সিসি রেজিঃ বিহীন মোটর সাইকেলটিতে মাদক বহন করে বিভিন্ন জায়গায় বিক্রয় করে আসছিলো।


মঙ্গলবার(৩১ মে) দুপুরে উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) ইমতিয়াজ কবির জানান, আটক মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। পলাতক আসামীকে গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।


আরও খবর



যতোটা না পেশা তার চেয়ে অনেক বেশি নেশা সাংবাদিকতা

প্রকাশিত:Monday ৩০ May ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৯৯জন দেখেছেন
শেখ মোস্তফা কামাল(যশোর জেলা প্রতিনিধি)

Image



সাংবাদিকরা খবরের সন্ধান করেন, খবরের পেছনে ছোটেন, খবর নির্বাচন করেন, সম্পাদনা করেন, সংশোধন করেন। সাংবাদিকরা যা করেন, তা হচ্ছে সাংবাদিকতা। সাংবাদিকতা হচ্ছে কাজ।কাজ হচ্ছে তথ্য সংগ্রহ করা, প্রতিবেদন লেখা এবং সম্পাদনা করা। সততা একজন সাংবাদিকের সবচেয়ে বড় গুণ। অনেক যোগ্যতা ও দক্ষতা থাকলেও সততার অভাবে সাংবাদিকদের অর্জিত সম্মান ধুলোয় মিশে যেতে পারে। সাংবাদিকতা যতোটা না পেশা তার চেয়ে অনেক বেশি নেশা, ভালোলাগা। এই নেশাটা হচ্ছে দেশের জন্য, মানুষের জন্য কিছু করার নেশা।


সাংবাদিক সুমন চক্রবর্তী-প্রকাশক,দৈনিক কলম কথা


শুভেচ্ছান্তেঃ- শেখ মোস্তফা কামাল, যশোর জেলা প্রতিনিধি 

চ্যানেল থ্রি বাংলা


আরও খবর



চৌগাছায় পুলিশের হাতে ২'শত ফেনসিডিলসহ ২ জন গ্রেফতার

প্রকাশিত:Wednesday ০১ June ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৬০জন দেখেছেন
শেখ মোস্তফা কামাল(যশোর জেলা প্রতিনিধি)

Image



শেখ মোস্তফা কামাল যশোর জেলা প্রতিনিধিঃ-


যশোরের চৌগাছা থানা পুলিশের অভিযান চালিয়ে ২'শত বোতল ফেনসিডিলসহ ২ জনকে গ্রেফতার করেছে। গত মঙ্গলবার (৩১মে) রাতে চৌগাছা টু মহেশপুর গামী পাঁকা রাস্তার পাশ থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। মাদক উদ্ধারের ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে। 


জানা গেছে, যশোর জেলার পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার,বিপিএম(বার),পিপিএম এঁর নির্দেশক্রমে মাদক ও চোরাচালান মুক্ত যশোর জেলা গঠনের লক্ষ্যে চৌগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইফুল ইসলাম সবুজ এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) বিপ্লব সরকার ও সহকারী উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এএসআই) আরিফ হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গত মঙ্গলবার (৩১মে) রাতে পৌরশহরের চৌগাছা মৃধাপাড়া মহিলা কলেজের সামনে চৌগাছা টু মহেশপুর গামী পাঁকা রাস্তার পাশে সাহেব আলীর ফুসকার দোকানের সামনে থেকে ২'শত বোতল ফেনসিডিলসহ ২জনকে গ্রেফতার করে। তারা হলেন শার্শা থানার যাদবপুর গ্রামের মৃত আইয়ুব আলীর ছেলে সাগর মিয়া (২২), বর্তমানে যশোর রেলগেট তেতুলতলা এলাকার বাসিন্দা ও কতোয়ালী থানার রেলগেট তেতুলিয়া এলাকার গোলজারের ছেলে মোঃ নাদিম (২৩)। এ ঘটনায় চৌগাছা থানায় একটি মাদকদ্রব্য নিয়ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে। যার মামলা নং-১/১৩০।


এ ব্যাপারে চোগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইফুল ইসলাম সবুজ বলেন, ফেনসিডিলসহ হাতেনাতে ২'জনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে। আসামীদের বুধবার সকালে পুলিশ স্কটের মাধ্যমে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।


আরও খবর



আপনার এলাকার ঘটে যাওয়া সংবাদ পাঠাতে পারেন এই মেইলে channel3bangla@gmail.com

প্রকাশিত:Monday ৩০ May ২০২২ | হালনাগাদ:Sunday ২৬ June ২০২২ | ৪৯জন দেখেছেন
চ্যানেল থ্রি বাংলা অনলাইন ডেক্স

Image

আপনার এলাকার ঘটে যাওয়া সংবাদ পাঠাতে পারেন এই মেইলে channel3bangla.com


আরও খবর